ফেসবুক কর্নার

মামা-ভাগনের খাতিরে জনবিচ্ছিন্ন প্রার্থীকে মনোনয়ন দিলে, পরাজয় নিশ্চিত

আবদুল হানিফ :

সারাদেশে ধাপে ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন চলছে। এখন তৃতীয় ধাপের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা হয়েছে। আগামী ২৮শে নভেম্বর আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

দলীয়ভাবে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি তাদের দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে।অপরদিকে বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিলেও তাদের অনেক নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে।

স্থানীয় পর্যায়ের এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কেননা এই নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিরাই আগামী ৫ বছর তৃণমূল পর্যায়ে জনগণকে সেবা প্রদান করবেন।

আমরা ভোট প্রদানে ভুল করলে অর্থাৎ সঠিক, যোগ্য ও প্রকৃত জনসেবক নির্বাচনে ভুল করলে সেই ভুলের মাশুল আগামী ৫ বছর আমাদেরকেই দিতে হবে। সেবা প্রাপ্তি হতে বঞ্চিত হবো আমরা। শুধু তা-ই নয়, এলাকার সামগ্রিক উন্নয়ন ব্যাহত হবে। হতে পারে আইন-শৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি, বাড়তে পারে খুন-খারাবি ও নানা সামাজিক অপরাধ।

অপরদিকে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রার্থী মনোনয়নে ভুল সিদ্ধান্ত নিলে, এর মাশুল গুনতে হবে রাজনৈতিক দল গুলোকে। প্রার্থী মনোনয়নে দলীয় আনুগত্য, দলের জন্য ত্যাগী মানুসিকতা ও সর্বোপরি তৃণমূল পর্যায়ে প্রার্থীর গ্রহণযোগ্যতা বিবেচনার দাবী রাখে। এইসব বিষয় উপেক্ষা করে মনগড়া, মনোনয়ন বাণিজ্য, মামা-ভাগনের প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে জনবিচ্ছিন্ন প্রার্থীকে মনোনয়ন দিলে, নিশ্চিত বিজয় পরাজয়ে পরিণত হতে পারে। অনেক বড় দলকেও আসন হারাতে হবে।

স্বতন্ত্র প্রার্থীদেরকেও হতে হবে আলাদা ও এক্সক্লুসিভ যোগ্যতা সম্পন্ন। কেননা দলীয় নির্বাচনের বেড়াজাল থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বিজয়ের মালা পরিধান করা চাট্টিখানি কথা নয়।

আমরা চাই নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হউক। এরমধ্য দিয়ে তৃণমূল পর্যায়ের এই স্থানীয় পরিষদে সৎ, নিষ্ঠাবান, দায়িত্বশীল, কর্তব্যপরায়ণ, ন্যায়বিচারক, সমাজসেবক ও প্রকৃত মানবপ্রেমিক জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়ে আসুক। যাদের হাত ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত “গ্রাম হবে শহর” কর্মসূচীর বাস্তবায়ন হবে।

লেখক: শিক্ষক ও সমাজকর্মী।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

পুবের আলো/সুমন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button